সংবাদ শিরোনাম
সাইবার ব্যবস্থাপনায় আন্তর্জাতিক মান নিয়ন্ত্রন করছে বাংলাদেশ ব্যাংক         ক্রমান্বয়ে ফেরত : প্রথম পর্যায়ে ৮০৩২ রোহিঙ্গার তালিকা হস্তান্তর         বিদেশি কর ফাঁকিবাজ ধরতে সক্রিয় হচ্ছে এনবিআর         বাংলাদেশে বিনিয়োগ করলে সিঙ্গাপুরও লাভবান হবে         খালেদা কারাগারে, যে সিদ্ধান্ত নিল আইনজীবীরা         রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের তালিকা হস্তান্তর আজ         রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের মূলধন ঘাটতি : বিকল্প চিন্তা সরকারের         গৃহপরিচারিকা ফাতেমাকে সঙ্গে পেলেন খালেদা         ইন্টারনেট প্রশ্ন ফাঁস করে না, করে মানুষ : মোস্তাফা জব্বার         খালেদার মুক্তির দাবিতে প্রেসক্লাবে অনশনে বিএনপি        
DSE

কোটা ব্যবস্থা তুলে দেয়া উচিত : আকবর আলী খান

akbar

বাংলাদেশ থেকে এই মুহূর্তে কোটা ব্যবস্থা তুলে দেয়া উচিত বলে মন্তব্য করেছেন সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ড. আকবর আলী খান। তিনি বলেছেন, কোটার কারণে দেশের মেধাবীরা আজ বিপন্ন। কোটা বন্ধ হলে অনেক মেধাবী চাকরি পাবে।

শনিবার সন্ধ্যায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘দ্য প্রেজেন্ট সিভিল সার্ভিস সিস্টেম ইন বাংলাদেশ’ শীর্ষক সেমিনারে তিনি এই মন্তব্য করেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের লোকপ্রশাসন বিভাগ এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এতে বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা অংশ নেন।
ড. আকবর আলী খান বলেন, কোনো দেশেই অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য কোটা ব্যবস্থা চালু রাখার নিয়ম নেই। বাংলাদেশের বিসিএস ক্যাডার নিয়োগে সবচেয়ে বড় সমস্যা হচ্ছে কোটা সিস্টেম। এর কারণে মেধাবীরা চাকরি পাচ্ছে না। কোটাকে অনেকে খারাপ, ভালো নয়, বাদ দেয়া উচিত এরকম বললেও এর বেশি কিছু বলেন না। পাবলিক সার্ভিস কমিশনে ২৫৭টি কোটা রয়েছে। পৃথিবীর কোনো দেশেই এমন উদ্ভট সিস্টেম নেই।

তিনি বলেন, মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য কোটা সিস্টেম চালু হয়েছিল, কারণ তাদের অবস্থা তখন খারাপ ছিল। কিন্তু এখন মুক্তিযোদ্ধার নামে যে কোটা দেয়া হয় তা নিতান্তই অমূলক।

সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের এই উপদেষ্টা আরো বলেন, বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশনের (পিএসসি) নিয়োগ পদ্ধতিতে অসংগতি রয়েছে। পাবলিক সার্ভিস কমিশন চায় সব পদের জন্য একই পরীক্ষা দিয়ে নিয়োগ হবে। এটি একটি উদ্ভট ধারণা। এর মাধ্যমে সঠিক ক্যাডার পাওয়া যায় না।