দুদকের তদন্ত-গ্রেফতার অভিযান আরও বেগবান হবে: সচিব

বিডিএফএন টোয়েন্টিফোর.কম

দুর্নীতি করে কেউ পার পাবে না জানিয়ে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সচিব মো. মাহবুব হোসেন বলেছেন, আগামীতে দুদকের তদন্ত, গ্রেফতার অভিযান আরও বেগবান করা হবে।

গতকাল বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) বিকেলে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় দুদকের প্রধান কার্যালয়ে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

সেবাখাতে দুর্নীতি প্রতিরোধ সম্পর্কে দুদক সচিব বলেন, দুদক আইন ২০০৪ এর বিভিন্ন ধারায় যে ক্ষমতা বা দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে সে মোতাবেক আমাদের কার্যক্রম চলমান রয়েছে। সেবাখাত আমাদের জীবন যাত্রার বাইরে না। আমাদের এনফোর্সমেন্ট টিম ২৪ ঘণ্টা প্রস্তুত থাকে। অভিযোগ পাওয়ার পর আমার যাচাই করি। যদি দেখি এখানে দুর্নীতি বা অনিয়ম হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে তৎক্ষণাৎ অভিযান পরিচালনা করি।

তিনি আরও বলেন, অভিযানের ক্ষেত্রে কখনো মামলা, কখনো প্রয়োজন হলে তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করে এনফোর্সমেন্ট টিম। বিধানের আলোকে আমাদের যা করণীয় আমরা সেটা করি। সবকিছুর বিষয়ে দুদকের সর্বদা নজর থাকে।

দেশের জরুরি সেবা খাতে অনিয়ম হলে আগে গ্রেফতার বা মামলা করা হতো এখন তা কমেছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে মাহবুব হোসেন বলেন, ২০২০ সাল থেকে আমরা করোনা পরিস্থিতি অতিক্রম করছি। সে জন্য অনেক ক্ষেত্রে তথ্য-উপাত্ত না পাওয়ায় বিলম্ব হতে পারে।

আগের চেয়ে গ্রেফতার কমেছে, এ ক্ষেত্রে কী আপনাদের ওপর চাপ আছে কি-না জানতে চাইলে দুদক সচিব বলেন, তথ্য পাওয়ার পর, যাচাই-বাছাই করে কীভাবে কাজ করতে হবে আমাদের সব কিছু তৈরি করা আছে। তথ্যপ্রাপ্তির সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নেওয়া হয়। এখন আমরা থেমে নেই কোনো কারণে থামার কোনো সম্ভাবনাও নেই।

তিনি আরও বলেন, আমাদের অভিযোগকেন্দ্রে টোল ফ্রি হটলাইন-১০৬ রয়েছে এই নম্বরে ২০২০ ও ২০২১ সালে ১ লাখ ১৩ হাজার ৭৭৩ টি কল এসেছে। এর মধ্য থেকে ২ হাজার ৪৪৯ টি অভিযোগ আমলে নিয়ে কার্যক্রম হাতে নেওয়া হয়েছে। কেউ যদি দুর্নীতি বা অনিয়ম করে থাকে তার বিরুদ্ধে বিধান মোতাবেক ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

দুদকের গ্রেফতার অভিযান কমে যাওয়ার বিষয়ে সচিব বলেন, শুধু দুদক প্রধান কার্যালয় না, আমাদের বিভাগ রয়েছে ৮টি, উপজেলা জেলা সব জায়গাতেই দুদকের কার্যক্রম দেখতে পাবেন। দুদক বসে নেই, দুদকের কার্যক্রম চলছে। একটু অপেক্ষা করেন।