কক্সবাজার সৈকতে কিটকটে শৃঙ্খলা ফেরাতে মাঠে ট্যুরিস্ট পুলিশ

বিডিএফএন টোয়েন্টিফোর.কম

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে কিটকটসহ চলমান নানা অব্যবস্থাপনা রোধ করতে মাঠে নেমেছে ট্যুরিস্ট পুলিশ। এরই অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) দুপুরে সুগন্ধা পয়েন্টে সৈকতের বালিয়াড়িতে কিটকটের (চেয়ার) শৃঙ্খলা ফেরাতে অভিযান চালানো হয়।

নীতিমালা অনুযায়ী পাঁচ ফুট দূরত্ব না রেখে বসানো কিটকটগুলো সরিয়ে দেওয়া হয়। এ সময় কিটকটগুলোর দূরত্ব ঠিক আছে কি না তা মেপে দেখা হয়।

প্রতিটি কিটকটের দূরত্ব ৫ ফুট বজায় রেখে পর্যটকদের নির্বিঘ্নে চলাফেরা ও অবস্থান নিশ্চিত করতে এই অভিযান চালানো হয়েছে।

টুরিস্ট পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রেজাউল করিম জানান, অভিযান চালিয়ে পর্যটকদের অবাধে চলাফেরায় বাধা সৃষ্টি করা বালিয়াড়ির কিটকটগুলোকে নির্দিষ্ট দূরত্বে সরিয়ে করা হয়েছে উন্মুক্ত পথ। সৈকতকে সাজাতে সবাই একযোগে কাজ করছে।

সৈকতে আগত পর্যটক রোমান হোসেন বলেন, চেয়ারের দূরত্ব ৫ ফুট করেছে এটা খুবই ভালো একটা উদ্যোগ। এটা আমাদের নিরাপদ হয়েছে। আমরা যখন চেয়ারে রেস্ট করি তখন আমাদের মালামাল গুলো নিয়ে চিন্তিত থাকি। অনেক সময় গোপন কথা বলতেও অনিরাপদ হয়।

রোমান আরও বলেন, কক্সবাজারের বিচ ম্যানেজমেন্ট কমিটির শর্তানুযায়ী একটি চেয়ার থেকে আরেকটি চেয়ারের দূরত্ব কমপক্ষে ৫ ফুট রাখতে হবে। এই শর্ত ভঙ্গ করে অনেক কিটকট ব্যবসায়ী কম দূরত্ব রেখে বেশি সংখ্যক চেয়ার বসিয়ে ট্যুরিস্টদের প্রাইভেসি নষ্ট করছে। অভিযানে মূলত কিটকট ব্যবসায়ীদের সামনে ফিতা টেনে দুটি চেয়ারের মাঝে ৫ ফুট দূরত্ব নিশ্চিত করা হয়।

এ ছাড়া যেহেতু এখন পর্যটকদের ভিড় অনেক বেশি, সে জন্য কিটকট ব্যবসায়ীদের ৫ দিন সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছে। আগামী ৫ দিনের মধ্যে তারা দুটি চেয়ারের মাঝে ৫ ফিট দূরত্ব নিশ্চিত করবেন। আগামী বুধবার (১০ আগস্ট) থেকে নির্দেশনা অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে ট্যুরিস্ট পুলিশ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।