দক্ষতা উন্নয়ন কোর্সের সমাপনী ও সনদপত্র বিতরণ

বিডিএফএন টোয়েন্টিফোর.কম

বাংলাদেশ পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল ড. বেনজীর আহমেদ, বিপিএম(বার)-এর দিক নির্দেশনায় এক সপ্তাহব্যাপী বাংলাদেশ পুলিশের সকল সদস্যের পদমর্যাদা ভিত্তিক প্রশিক্ষণের আওতাভুক্ত নায়েক ও কনস্টেবলদের দক্ষতা উন্নয়ন কোর্স চালু চলমান। তারই ধারাবাহিকতায় চুয়াডাঙ্গা পুলিশ লাইন্স ড্রিলসেডে অনুষ্ঠিত হলো দক্ষতা উন্নয়ন কোর্স ৫ম ব্যাচের সমাপনী ও সনদপত্র বিতরণ অনুষ্ঠান।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার মোঃ জাহিদুল ইসলাম।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে পুলিশ সুপার বলেন, “কঠিন প্রশিক্ষণ, সহজ যুদ্ধ” প্রশিক্ষণ হচ্ছে এমন একটি পরিকল্পিত কার্যক্রম যেখানে একদল মানুষকে একটি নির্দিষ্ট বিষয়ের উপর দক্ষতা বৃদ্ধি করা হয়। প্রশিক্ষণের মাধ্যমে ব্যক্তির কাজের উপর জ্ঞান ও দৃষ্টিভঙ্গীর পরিবর্তন ঘটে। প্রশিক্ষণ প্রদানের মাধ্যমে কর্মক্ষেত্রে আত্মবিশ্বাস ও সাহস বৃদ্ধি পায়। সঠিক প্রশিক্ষন গ্রহণকারী ব্যক্তিই শত্রুপক্ষের অভিসন্ধি রপ্ত এবং তাৎক্ষনিক আক্রমণ প্রতিহত করতে সক্ষম। আর এ জন্য উত্তম প্রশিক্ষনের বিকল্প নেই। প্রশিক্ষনের মাধ্যমে শারীরিক ও মানসিক ক্ষিপ্রতা, পেশীর ক্ষিপ্রতা, ফুসফুসের শক্তি, সহনশীলতা, দ্রুত চিন্তা ও সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষমতা এবং প্রতিপক্ষের কৌশল ও মনোভাব অনুধাবনের যোগ্যতা অর্জিত হয়। সকল পুলিশ সদস্য কর্তব্যরত অবস্থায় নিজের জানমাল, অপরের জানমাল ও সরকারী সম্পত্তি রক্ষায় সঠিক সময়ে সঠিক পদক্ষেপ গ্রহণ করাই এ প্রশিক্ষণের মূল লক্ষ্য।

পরিশেষে পুলিশ সুপার দক্ষতা উন্নয়ন কোর্সের সমাপনী ও সনদপত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে সফলতা ও দক্ষতার সাথে প্রশিক্ষণ সমাপ্ত করায় প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণকারী পুলিশ সদস্যদের মাঝে সনদপত্র বিতরণ করেন।

দক্ষতা উন্নয়ন কোর্স ৫ম ব্যাচের সমাপনী ও সনদপত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে আরোও উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) কনক কুমার দাস, আরআই, পুলিশ লাইন্সসহ দক্ষতা উন্নয়ন কোর্সের প্রশিক্ষকগন ও প্রশিক্ষণে অংশগ্রহনকারী প্রশিক্ষনার্থীগণ।