সূচকের বড় উত্থান শেয়ারবাজারে

বিডিএফএন টোয়েন্টিফোর.কম

দেশের শেয়ারবাজারে সূচকের বড় উত্থান ঘটেছে। মার্জিন ঋণ নিয়ে নতুন নির্দেশনায় বিনিয়োগকারীদের আশা জাগিয়েছে। সূচকের বড় উত্থান হওয়ার পাশাপাশি বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে। সেই সঙ্গে বেড়েছে লেনদেনের পরিমাণও।

মার্জিন ঋণ নিয়ে নতুন নির্দেশনা আসায় মঙ্গলবার ডিএসইতে লেনদেন শুরু হয় বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়ার মাধ্যমে। ফলে লেনদেন শুরু হতেই ডিএসইর প্রধান সূচক ৬০ পয়েন্ট বেড়ে যায়। লেনদেনের সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে সূচকের ঊর্ধ্বমুখিতাও বাড়ে।

ফলে দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ১১৫ পয়েন্ট বেড়ে ৭ হাজার ৫৬ পয়েন্টে উঠে এসেছে। অপর দুই সূচকের মধ্যে ডিএসই শরিয়াহ্ ১৯ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৪৮৪ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। আর বাছাই করা ভালো কোম্পানি নিয়ে গঠিত ডিএসই-৩০ সূচক ৩১ পয়েন্ট বেড়ে ২ হাজার ৬৯১ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

দিনভর ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেওয়া ২১৯ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ১৩০টির। আর ২৭টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৪৯১ কোটি ৮৫ লাখ টাকা, যা আগের দিনের চেয়ে ৭০ কোটি ৫১ লাখ টাকা বেশি।

টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে বেক্সিমকোর শেয়ার। কোম্পানিটির ১৪৪ কোটি ৭৩ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা আইএফআইসি ব্যাংকের ১১৬ কোটি ৩১ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে।

৭৩কোটি ৫৫ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে রয়েছে ব্র্যাক ব্যাংক।

এ ছাড়া ডিএসইতে লেনদেনের দিক থেকে শীর্ষ ১০ প্রতিষ্ঠানের তালিকায় রয়েছে- স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস, বেক্সিমকো ফার্মা, ওরিয়ন ফার্মা, জিনেক্স ইনফোসিস, এনআরবিসি ব্যাংক, কাট্টালী টেক্সটাইল এবং লংকাবাংলা ফাইন্যান্স।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক মূল্যসূচক সিএএসপিআই বেড়েছে ৩১৫ পয়েন্ট। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ৬৫ কোটি ৯৩ লাখ টাকা। লেনদেনে অংশ নেওয়া ২৯০টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৫০টির দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ১১৩টির এবং ২৭টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।