লক্ষ মায়ের আত্মত্যাগ ও আত্মদানের বিনিময়ে আমাদের স্বাধীনতা অর্জিত হয়েছে- সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা (০৫ আগস্ট, ২০২২ খ্রি.):

সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এমপি বলেছেন, মহান মুক্তিযুদ্ধে নারীরা একদিকে যেমন সরাসরি অংশগ্রহণ করেছে, অন্যদিকে বহু নারী বা মা দেশমাতৃকার স্বাধীনতার জন্য তাদের সন্তানকে যুদ্ধে পাঠিয়ে আত্মত্যাগ করেছেন। শহিদ বীর মুক্তিযোদ্ধা ক্যাডেট ল্যান্স কর্পোরাল নওফেলের মাও সেরকমই একজন আত্মোৎসর্গকারী নারী। তারা একদিকে ভেবেছিলেন, যুদ্ধ শেষে তাদের সন্তান তাদের কোলে ফিরে আসবে আবার অন্য দিকে সন্তানকে আর ফিরে না পাবার আশঙ্কাও তাদের মনে ছিল। লক্ষ মায়ের আত্মত্যাগের বিনিময়ে আমাদের স্বাধীনতা অর্জিত হয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী আজ সকালে রাজধানীর জাহাঙ্গীর গেট সংলগ্ন শাহীন হলে বাংলাদেশ ন্যাশনাল ক্যাডেট কোর (বিএনসিসি) আয়োজিত শহিদ বীর মুক্তিযোদ্ধা ক্যাডেট ল্যান্স কর্পোরাল নওফেলের উপর নির্মিত “Story of a Great Hero Nowfel” শীর্ষক প্রামাণ্যচিত্রের প্রিমিয়ার শো এবং মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন তৎকালীন ইউওটিসি (বর্তমান বিএনসিসি) দ্বারা প্রশিক্ষিত বর্তমানে জীবিত ১৫ জন নারী প্রশিক্ষণার্থীর সংবর্ধনা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

প্রধান অতিথি বলেন, প্রামাণ্যচিত্রটির মাধ্যমে একদিকে যেমন মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে বিএনসিসি’র অবদান জাতির সামনে তুলে ধরা হয়েছে, অন্যদিকে মহান মুক্তিযুদ্ধে মায়েদের আত্মত্যাগের কথাও এতে সুনিপুণভাবে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী বলেন, এ ধরনের আয়োজন মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি আমাদের দায়িত্ব ও কর্তব্যবোধের পরিচায়ক। তাই এ ধরনের আয়োজন আমাদের নিয়মিত করা উচিত। প্রতিমন্ত্রী এসময় এ আয়োজনের জন্য বিএনসিসি’র মহাপরিচালককে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।

বাংলাদেশ ন্যাশনাল ক্যাডেট কোর (বিএনসিসি) এর মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নাহিদুল ইসলাম খান, বিএসপি, এনডিসি, পিএসসি এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন শহিদ ক্যাডেট ল্যান্স কর্পোরাল মেজবাহ উদ্দিন নোফেলের ছোট বোন নাজমুন নাহার খান, প্রামাণ্যচিত্রের পরিকল্পনাকারী ও নির্মাতা মোহাম্মদ নাদিম ইকবাল, সংবর্ধিত প্রশিক্ষণার্থী ও তৎকালীন (মুক্তিযুদ্ধকালীন) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের ছাত্রী রোকেয়া কবীর। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন লেফটেন্যান্ট কর্ণেল রাহাত নেওয়াজ।