স্তন ক্যান্সার প্রতিরোধে জনসচেতনতার ওপর গুরুত্ব বাড়াতে হবে : ডিএনসিসি মেয়র

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন-ডিএনসিসি মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম বলেছেন, স্তন ক্যান্সার প্রতিরোধে জনসচেতনতার ওপর গুরুত্ব বাড়াতে হবে।
গতকাল সোমবার ১১ অক্টোবর ২০২১ইং তারিখ সকালে রাজধানীর উত্তরায় ১০ নম্বর সেক্টরে আহছানিয়া মিশন ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের বিশ্ব স্তন ক্যান্সার সচেতনতা মাস উদযাপন উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি একথা বলেন।
ডিএনসিসি মেয়র বলেন, প্রাথমিক পর্যায়ে স্তন ক্যান্সার শনাক্ত করা সম্ভব হলে সুচিকিৎসার মাধ্যমে শতকরা ৯০ জনকেই পুরোপুরি নিরাময় করা সম্ভব।
মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, স্তন ক্যানসারের লক্ষণগুলো সম্পর্কে সম্যক ধারণা রাখা প্রত্যেক নারীর জন্যই আবশ্যক।
তিনি বলেন, নগরবাসীর মধ্যে বাল্যবিবাহ রোধসহ নারীদের কল্যাণে জনসচেতনতা বাড়ানোর লক্ষ্যে ডিএনসিসির পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।
ডিএনসিসি মেয়র আহছানিয়া মিশন ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতাল দীর্ঘদিন ধরে দরিদ্র ও অসহায় মানুষের সেবায় নিয়োজিত থাকার পাশাপাশি মানুষের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধিতেও বড় ভূমিকা পালন করায় এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।
মেয়র বলেন, সবাই মিলে সবার ঢাকাকে দখল ও দূষণমুক্ত করে একটি সুস্থ, সচল ও আধুনিক ঢাকা নগরীতে পরিণত করতে হবে।
তিনি আরও বলেন, “মাস্ক আমার, সুরক্ষা সবার”তাই বিদ্যমান পরিস্থিতিতে সবাইকে সঠিকভাবে মাস্ক পরিধানসহ সরকারী নির্দেশনা ও স্বাস্থ্য বিধিসমূহ যথাযথভাবে মেনে চলতে হবে।
প্রধান অতিথি হিসেবে নিজের গুরুত্বপূর্ণ বক্তৃতা শেষে ডিএনসিসি মেয়র “কাজী রফিকুল আলম টিউমার বোর্ড” ও “অধ্যাপক ডা. এম. এ. হাই ক্যান্সার রেজিস্ট্রি এন্ড রিসার্চ সেন্টার”-এর উদ্বোধন করেন।
ঢাকা আহসানিয়া মিশনের সভাপতি কাজী রফিকুল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে অধ্যাপক ডা. এম. এ. হাই, বিশিষ্ট কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন এবং ডিএনসিসির প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. জোবায়দুর রহমান বক্তব্য দেন।