জহুরুল হকের হাত ধরেই সফলতার দিকে এগিয়ে যাচ্ছে জীবন বীমা কর্পোরেশন

বিশেষ প্রতিবেদক

জীবন বীমা কর্পোরেশন বাংলাদেশের একটি রাষ্ট্রায়ত্ত জীবন বীমা কোম্পানি। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭৩ সালে জীবন বীমা কর্পোরেশন প্রতিষ্ঠা করেন। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে জীবন বীমা কর্পোরেশন তার ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে দেশের উন্নয়নমূলক কার্যক্রম দ্বারা অভ্যন্তরীণ পুঁজি সংগ্রহ ও জনসাধারণের সচেতনতা বৃদ্ধিতে প্রশংসনীয় ভূমিকা পালন করে আসছে।

প্রতিষ্ঠানটিতে বর্তমানে ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে সুনামের সঙ্গে দায়িত্ব পালন করছেন মো. জহুরুল হক। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের অতিরিক্ত সচিব মো. জহুরুল হক এর আগে বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (বিউবো) সদস্য প্রশাসন হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়া জহুরুল হক নর্থ-ওয়েস্ট পাওয়ার জেনারেশন কোম্পানি লিমিটেড, ঢাকা ইলেকট্রিক সাপ্লাই কোম্পানি লিমিটেড, ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড এবং বড়পুকুরিয়া কোল মাইনিং কোম্পানি লিমিটেডের পরিচালনা পর্ষদের পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

জহুরুল হক ১৯৬৩ সালে ভোলায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ১৯৮৮ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রথম শ্রেণিতে প্রথম স্থান অধিকার করে এমএসসি ডিগ্রি এবং ২০০০ সালে নোরাড ফেলোশিপ প্রোগ্রামের আওতায় নরওয়ে থেকে এমফিল ডিগ্রি অর্জন করেন। বিসিএস (প্রশাসন) ক্যাডারের নবম ব্যাচের কর্মকর্তা মো. জহুরুল হক ২০১৩ সালের ৬ নভেম্বর থেকে বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডে কর্মরত ছিলেন। তিনি বিউবোর সচিব পদে আড়াই বছর, সদস্য (অর্থ) পদে ছয় মাস এবং সদস্য (প্রশাসন) পদে চার বছরের অধিক সময় দায়িত্ব পালন করেছেন। বিউবোতে যোগদানের আগে তিনি নড়াইলের জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

জহুরুল হক চাকরি জীবনে বিসিএস কর্মকর্তাদের জন্য আয়োজিত বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ কোর্সে ১ম স্থান অধিকার করে রেক্টর পদক এবং আইন ও প্রশাসন কোর্সে ১ম স্থান অধিকার করে বিশেষ পদক অর্জন করেন। তিনি প্রশিক্ষণ ও পেশাগত কাজে এশিয়া, ইউরোপ এবং আমেরিকার বেশ কয়েকটি দেশ ভ্রমণ করেন। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি বিবাহিত এবং দুই সন্তানের জনক।

মো. জহুরুল হক জীবন বীমা কর্পোরেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে যোগদানের পর থেকেই সাশ্রয়ী মূল্যে জীবন বীমার সুফল জনগণের কাছে পৌঁছে দেয়ার লক্ষে নিরলস পরিশ্রম করছেন। করোনা সংকটে তিনি একদিনও থেমে থাকেননি। প্রতিনিয়ত জীবন বীমা কর্পোরেশনের কাজে সক্রিয় ছিলেন। মানবসম্পদ উন্নয়ন, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি এবং জীবনমানের উন্নয়নে ভূমিকা রাখার চেষ্টা করছেন প্রতিনিয়ত। জীবন বীমা কর্পোরেশনকে আরও এগিয়ে নিতে মো. জহুরুল হক ব্যাপক পরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন। তার পরিকল্পনা ও কর্মতৎপরতার মাধ্যমে জীবন বীমা কর্পোরেশন উন্নয়নের শিখরে পৌঁছে যাবে এমনটিই মনে করছেন বীমা সংশিষ্ট ব্যক্তিবর্গরা।