বাফওয়া-এর ৪৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন

বিডিএফএন টোয়েন্টিফোর.কম

বাংলাদেশ বিমান বাহিনী মহিলা কল্যাণ সমিতি (বাফওয়া) এর ৪৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী শুক্রবার (১০-০৬-২২) ঢাকা সেনানিবাসে অবস্থিত বিমান বাহিনী ঘাঁটি বাশার-এ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাফওয়ার সভানেত্রী তাহমিদা হান্নান। প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালী, শ্রেষ্ঠ কর্মীদের পুরষ্কার বিতরণ ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

বিমান বাহিনী পরিবারের অন্তর্নিহিত সম্ভাবনা ও সুপ্ত প্রতিভার সুপরিকল্পিত বিকাশ সাধন এবং তাদের সামাজিক ও অর্থনৈতিক উন্নয়নে সহযোগিতার লক্ষ্যে ‘সেবা, সংস্কৃতি ও সৌহার্দ্য’ এই মূলমন্ত্রে উজ্জীবিত হয়ে ১০ জুন ১৯৭৭ তারিখে বাংলাদেশ বিমান বাহিনী মহিলা সমিতির (বাফওয়া) কার্যক্রম শুরু হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বিগত ১ বছরে বাফওয়া কর্তৃক গৃহীত বিভিন্ন উন্নয়ন এবং সেবামূলক কার্যক্রম যেমন, বিমান বাহিনীতে কর্মরত চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী এবং তাদের পরিবারবর্গের জন্য বিনামূল্যে প্যাথলজি, রেডিওলজি ও শল্যচিকিৎসা প্রদানের জন্য ‘নব আলো’ প্রকল্প, বিশেষ শিশুদের জন্য বিশেষায়িত স্কুল (Blue Sky) প্রতিষ্ঠা, চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারীদের প্রতিবন্ধি সন্তানদের জন্য বিশেষ চিকিৎসা ভাতা প্রদান, শমশেরনগরে ‘বাফওয়া গোল্ডেন ঈগল নার্সারী’ স্কুল স্থাপন, Blue Horizon কম্পিউটার প্রশিক্ষণ প্রকল্প, ‘ইন্ডাস্ট্রিয়াল হোম পাইলট প্রকল্প’, অবসর প্রাপ্ত বিমান সেনা ও এমওডিসি (বিমান) গণের পত্নীদের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদানের জন্য ‘সুরক্ষা’ স্কীম, বাফওয়া আঞ্চলিক শাখা সমূহে Belleza নামক চেইন বিউটি পার্লার স্থাপন ইত্যাদি বিষয়ে উল্লেখ করেন।

এছাড়াও, অতিশীঘ্রই বিমানসেনা, এমওডিসি (এয়ার) ও বেসামরিক কর্মচারীদের মেধাবী সন্তানদের শিক্ষাবৃত্তি, মান সম্মত চিকিৎসার লক্ষ্যে হাসপাতাল ও নার্সিং ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা, ডেইরি ফার্ম প্রতিষ্ঠা এবং বিভিন্ন ভাষা শিক্ষার জন্য ল্যাঙ্গুয়েজ ল্যাবের কার্যক্রম উদ্বোধন হতে যাচ্ছে বলে জানানো হয়। এই অনুষ্ঠানমালা ঢাকা এলাকার পাশাপাশি একই সময়ে বিমান বাহিনীর বিভিন্ন ঘাঁটিতে আয়োজন করা হয়।

উক্ত অনুষ্ঠানে বাফওয়ার প্রাক্তন সভানেত্রীগণ, বিমান বাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বৃন্দের পত্নীগণ ও কেন্দ্রীয় বাফওয়ারসহ সভানেত্রী বৃন্দসহ ঢাকা অঞ্চলের আঞ্চলিক শাখার সভানেত্রীগণ, বিমান বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বৃন্দের পত্নীগণ এবং বিভিন্ন আঞ্চলিক শাখা সমূহের সদস্য ছাড়াও উল্লেখ যোগ্য সংখ্যক বিমান সেনাদের পত্নীগণ উপস্থিত ছিলেন।