তাল বীজ বপন করলো আজকের তারন্য সংগঠন

সাঈদ আহম্মেদ সাবাব, (শেরপুর):

বাংলাদেশে কয়েকটি জেলার মধ্যে শেরপুর জেলা একটি বজ্রপ্রবন এলাকা। প্রতি বছর বর্ষা মৌসুমে ব্রজ্রপাতে নিহতের ঘটনা ঘটে। প্রাকৃতিক দুর্যোগ ও বজ্রপাতের হাত থেকে রক্ষা পেতে জেলার বিভিন্ন স্থানে তাল বীজ বপনের কার্যক্রম হাতে নেওয়া হয়েছে। এই কর্মসূচীর অংশ হিসেবে শেরপুর সদর উপজেলাসহ অন্য আরও ৪ উপজেলায় তাল বীজ বপন করছে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন আজকের তারণ্য। শনিবার (২০ নভেম্বর) শেরপুর জেলা শহরের জিকে পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে তালবীজ বপন কর্মসূচীতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডিসি পত্নী জান্নাতুল ফেরদৌস প্রিয়া।

এসময় এক সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে জান্নাতুল ফেরদৌস প্রিয়া বলেন, বাংলাদেশে অন্যানো জেলার মত শেরপুর জেলাও বজ্রপ্রবন এলাকা হিসেবে চিহ্নিত। মারান্তক ঝুকিপূর্ন এ জেলায় প্রতিবছর বজ্রপাতে কৃষসহ অনেকেই মারা যাচ্ছে। বজ্রপাত রোধে তাল গাছ ব্যাপকভাবে ভূমিকা রাখে। এসময় তাল গাছ তেমন চোঁখে পরে না। এছাড়াও অনেকে জেনে শোনেও তাল গাছ কেঁটে ফেলছেন।

তিনি আরও বলেন, বর্তমান তরুন সমাজ মোবাইল, ইন্টারনেট ও গেইমসে আসক্ত। আজকাল স্কুল কলেজে কিশোর গ্যাং তৈরী হচ্ছে। যারা অনেকেই বিভিন্ন অপরাধে জড়িয়ে পরছে। এসব কিছু পেছনে ফেলে শেরপুরের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন আজকের তারণ্য তাল বীজ বপনের কার্যক্রম হাতে নিয়েছে। যা অত্যন্ত প্রশংসনীয় কাজ।

আজকের তারণ্যর সভাপতি রবিউল ইসলাম রতনের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, জিকে পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ মঞ্জুরুল হক, নাগরিক সংগঠন জন উদ্যেগের আহবায়ক ও নিউজবাংলা পাঠক ফোরামের আহ্বায়ক আবুল কালাম আজাদ, সংগঠনটির উপদেষ্টা এবিএম শফিকুল ইসলাম শান্ত প্রমূখ।

অনুষ্ঠানে সমাপনী বক্তব্যে সংগঠনটির সভাপতি রবিউল ইসলাম রতন বলেন, আমরা বজ্রপাত রোধে তাল বীজ বপন করছি। আমাদের ইতিমধ্যে ২০০ বীজ বপন সম্পন্ন হয়েছে। আমাদের ইচ্ছা আজকের তারণ্য থেকে শেরপুরের পাঁচ উপজেলায় ৫০০ তালবীজ বপন করা হবে।

এসময় অন্যানোদের মধ্যে সংগঠনটির সাধারন সম্পাদক দীপ্ত মোদক, সহ সভাপতি-জাহিদুল খান সৌরভ, আবু সাইদ,সাংগঠনিক সম্পাদক-তাহসিন মাসরুফ তুষার, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক- মুক্তি আহমেদ, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক-ফারজিয়া পপি, প্রচার সম্পাদক-মোঃ আমানুল্লাহ, আইন বিষয়ক সম্পাদক-ওসমান গনি,ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক- মোঃ শহিদুল ইসলাম। সদস্য দ্বীপ ঘোষ, প্রভাস চৌধুরী, বিলাশ দাস, জিহান হাসনাত রাসেল, কাজলা, মোঃ কারিমুল ইসলাম, আবু সাইদ, মোঃ আবু নাহার, আশিকুর রহমান খসরু, মোঃ রাকিব হাসান, সুমাইয়া আক্তার তিথি, মিথিলা জান্নাত মীম, মোস্তারি তাসলিন মেঘলা, কামরুল হাসান প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।