দুর্গাপুরের পল্লীতে ছিনতাই আহত

এস.এম রফিকুল ইসলাম রফিক, (নেত্রকোনা):

নেত্রকোনাস্থ দুর্গাপুর উপজেলার চন্ডিগড় ইউনিয়নের আলমপুর বাজারের ইলেক্ট্রনিক্স, বিকাশ,রকেট,নগদ ও মোবাইল রিচার্স ব্যবসায়ী এনামুল হক কাজল ছিনতাইকারীর কবলে পড়ার অভিযোগ পাওয়াগেছে। গত (১২ জানুয়ারী) বুধবার রাতে এ ঘটনা ঘটে।

ছিনতাইকারীর কবলে পড়া আলমপুর গ্রামের আবুল কালাম এর পুত্র ইলেক্ট্রনিক্স, বিকাশ,রকেট,নগদ এজেন্ট ও মোবাইল রিচার্স ব্যবসায়ী এনামুল হক কাজল দুর্গাপুর সরকারী হাসপাতালের বিছানায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় প্রতিনিধিকে জানান সে প্রতিদিনের মতো আলমপুর বাজারে থাকা তার ভাই ভাই টেলিকম নামক দোকান বন্ধকরে আমদানীর নগদ টাকা বিকাশ,রকেট,নগদ এর ব্যবহ্নত কয়েকটি মোবাইল সেট সহ রাত সারে আটটার দিকে নিজবাড়ীতে যাওয়ার সময় একই গ্রামের পন্ডিতের গোরস্থান নামক জায়গায় পৌছলে রাস্তার দু-পাশ থেকে অন্ত:ত ৫/৬জন লোক তাকে ঘিরেফেলে এবং তার পকেটে থাকা নগদ টাকা, মোবাইল সেটগুলি ছিনিয়ে নেয় এ সময় জবরদস্তিকালে কাজলের গলায় ও ঘারে দাড়ালো চাকু বা ছুড়িদিয়ে আঘাত করা হয়েছে বলে জানান কাজল।

এসময় তার ডাক চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে এলে ছিনতাইকারীরা পালিয়ে যায়।খবর পেয়ে তার পিতা আবুল কালাম সঙ্গীয় লোকজন সহ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে কাজলকে উদ্ধার করে রাত সারে ৯টার দিকে দুর্গাপুর সরকারী হাসপাতালে ভর্তি করেণ।

এক প্রশ্নের জবাবে কাজল বলেন তার নগদ টাকা সহ অন্তত: সারে তিন লক্ষ টাকা ছিনিয়ে নেয় ছিনতাইকারীরা। অপর প্রশ্নের জবাবে বলেন তিনতাইকারীদের মধ্যে তিনজনকে সরাসরি চিনতে পেরেছেন সে তারা হলো একই গ্রামের আবুল কাসেম(৪৫),মোহাম্মদ আলী(৫৫)ও মোজাম্মেল হক(৩০)।

এনামুল হক কাজল দুর্গাপুর সরকারী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে,থানায় অভিযোগ দায়েরের পুর্ন প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানান কাজলের পিতা আবুল কালাম।