সূচক বেড়ে শেষ হলো লেনদেন

বিডিএফএন টোয়েন্টিফোর.কম

দেশের শেয়ারবাজারে সপ্তাহের তৃতীয় কার্যদিবস মঙ্গলবার (৮ মার্চ) লেনদেনের শুরুতে বড় দরপতন দেখা দিলেও শেষ পর্যন্ত সূচকের কিছুটা উত্থান দিয়ে দিনের লেনদেন শেষ হয়েছে। এদিন প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) প্রধান মূল্যসূচক বাড়ার পাশাপাশি বেড়েছে লেনদেনে অংশ নেওয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসন শুরুর পর দেশের শেয়ারবাজারে টানা দরপতন দেখা দেয়। এতে গতকাল সোমবার পর্যন্ত শেষ আট কার্যদিবসের মধ্যে সাত কার্যদিবসেই পতন দিয়ে পার করেছে শেয়ারবাজার। ধারাবাহিক দরপতনের মধ্যে ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ৪৯২ পয়েন্ট কমে যায়।

এ পরিস্থিতিতে মঙ্গলবার শেয়ারবাজারে লেনদেনের শুরুতে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দরপতন হতে থাকে। লেনদেনে অংশ নেওয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের দরপতন হওয়ায় সকাল ১০টা ৫২ মিনিটের মাথায় ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ১৩৮ পয়েন্ট পড়ে যায়।

এরপর খবর আসে শেয়ারবাজার পরিস্থিতি নিয়ে জরুরি সংবাদ সম্মেলন ডেকেছে পুঁজিবাজারের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। এতে পতনের তালিকা থেকে একের পর এক প্রতিষ্ঠান বেরিয়ে আসতে থাকে। ফলে সূচকের বড় পতন দেখতে দেখতে ঊর্ধ্বমুখী হয়ে পড়ে।

দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ১৭ পয়েন্ট বেড়ে ৬ হাজার ৪৭৪ পয়েন্টে উঠে এসেছে। অপর দুই সূচকের মধ্যে ডিএসই শরিয়াহ্ সূচক আগের দিনের তুলনায় ৪ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৩৯৯ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। আর বাছাই করা ভালো কোম্পানি নিয়ে গঠিত ডিএসই-৩০ সূচক দশমিক ৩১ পয়েন্ট কমে ২ হাজার ৩৭৪ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেওয়া ২১৭টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দাম বাড়ার তালিকায় নাম লিখিয়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ১১৬টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৫টির দাম। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ৭৪৬ কোটি ৯ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয় ৭৪০ কোটি ২৬ লাখ টাকা। সে হিসাবে লেনদেন বেড়েছে ৫ কোটি ৮৩ লাখ টাকা।

ডিএসইতে টাকার অঙ্কে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে বেক্সিমকোর শেয়ার। কোম্পানিটির ৫৯ কোটি ৬২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছ। দ্বিতীয় স্থানে থাকা বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের ২২ কোটি ২৭ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে। ২১ কোটি ৩৮ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে রয়েছে বিকন ফার্মা।

এছাড়া ডিএসইতে লেনদেনের দিক থেকে শীর্ষ ১০ প্রতিষ্ঠানের তালিকায় রয়েছে- স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস, ব্রিটিশ আমেরিকান টোবাকো, লাফার্জহোলসিম বাংলাদেশ, ওরিয়ন ফার্মা, অগ্নি সিস্টেম, ফরচুন সুজ এবং ব্র্যাক ব্যাংক।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক মূল্যসূচক সিএএসপিআই বেড়েছে ২৮ পয়েন্ট। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ২২ কোটি ২ লাখ টাকা। লেনদেনে অংশ নেওয়া ২৭৪টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৫২টির দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ৯৯টির এবং ২৩টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।