সংবাদ শিরোনাম
DSE

মানবতাবিরোধী অপরাধ: পটুয়াখালীর পাঁচজনের মৃত্যুদণ্ড

ict_daily_sun_pic

মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে পটুয়াখালীর ইসহাক সিকদারসহ পাঁচজনের মৃত্যুদণ্ডের রায় দিয়েছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল।

আজ  সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বিচারপতি মো. শাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বে তিন সদস্যের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল এ রায় দেন।

এর আগে সকাল থেকে পাঁচজনের বিরুদ্ধে ১৫৯ পৃষ্ঠার রায় পড়া শুরু হয়। রায়ের প্রথম অংশ পড়া শুরু করেন বিচারপতি আবু আহমেদ জমাদার। রায়ের দ্বিতীয় অংশ পড়েন বিচারপতি আমির হোসেন। রায়ের মূল অংশ পড়েন ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান শাহিনুর ইসলাম।

এই মামলার অন্য আসামিরা হলেন- আব্দুল গণি হাওলাদার, আব্দুল আওয়াল ওরফে মৌলভী আওয়াল, আব্দুস সাত্তার প্যাদা ও সোলায়মান মৃধা। আসামিরা বর্তমানে কারাগারে আছেন।

১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সময় পটুয়াখালীর ইটাবাড়িয়া গ্রামে লুটপাট, অগ্নিসংযোগ, অপহরণ, আটকে রেখে নির্যাতন, ১৭ জনকে হত্যা এবং অন্তত ১৫ নারীকে ধর্ষণের মতো মানবতাবিরোধী অপরাধের দুটি ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে এ মামলার আসামিদের বিরুদ্ধে।

প্রসিকিউশন ও আসামিপক্ষের যুক্তিতর্ক শুনানি শেষে গত ৩০ মে মামলাটি রায়ের জন্য অপেক্ষমাণ (সিএভি) রেখেছিল আদালত। প্রসিকিউশনের পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন প্রসিকিউটর জেয়াদ অল মালুম ও রেজিয়া সুলতানা চমন। আসামিপক্ষে ছিলেন আইনজীবী আব্দুস সাত্তার পালোয়ান ও সালাম খান।

প্রসিকিউশনের অভিযোগপত্রে বলা হয়, পাঁচ আসামির সবাই একাত্তরে ছিলেন মুসলিম লীগ সমর্থক। আর ২০১৫ সালে গ্রেপ্তার হওয়ার সময় তারা স্থানীয় বিএনপির রাজনীতিতে জড়িত ছিলেন।

উল্লেখ্য, গত বছর ৮ মার্চ অভিযোগ গঠনের মধ্য দিয়ে পটুয়াখালীর এই পাঁচ আসামির বিচার শুরু করেন আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনাল।